জিলহজ: বছরের শ্রেষ্ঠ ১০ দিন, নিজেকে গড়ার সেরা সুযোগ!

জিলহজ: বছরের শ্রেষ্ঠ ১০ দিন, নিজেকে গড়ার সেরা সুযোগ!

জিলহজের প্রথম দশ দিন। বছরের সেরা দশ রাত যেমন রমযানের শেষ দশ রাত, তেমনি বছরের সেরা দশ দিন হচ্ছে জিলহজের এই দশদিন। এই মাসেই আল্লাহর বান্দারা মনের ব্যাকুলতা নিয়ে ছুটে যায় তাঁর ঘরে। ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ ধ্বনিতে মুখরিত হয় মাসজিদুল হারাম প্রাঙ্গণ। অন্যদিকে যারা বাইতুল্লাহ জিয়ারতের ডাক পায় না, তাদের জন্য জিলহজের দশটি দিনকে আল্লাহ্‌

Read more

যেভাবে ডুব দেবেন নামাযের গহীনে

যেভাবে ডুব দেবেন নামাযের গহীনে

নামাযে দাঁড়ালেই মন ইচ্ছামতো সফরে বেরিয়ে পড়ে। এটা আমাদের জাতীয় রোগ। যে কথাগুলো ভুলে গিয়েছিলেন, সেগুলো একে একে মনে পড়তে শুরু করে যখন আপনি নামাযে দাড়াবেন। রাজ্যের কাজকর্ম আপনার দু’চোখের সামনে এসে জমা হবে নামাযে দাড়াতেই। নামাযে দাড়িয়ে ঘুম পাবে, চুল-মুখ চুলকাতে থাকবে। এগুলো আমাদের সবারই অভিজ্ঞতা। এই সবকিছুর ভিড়ে নামাযটা আর যথাযথভাবে পড়া হয়ে

Read more

ফজরে জেগে উঠার পাঁচ কৌশল

ফজরে জেগে উঠার পাঁচ কৌশল

আমরা যারা নিয়মিত নামাজ পড়ি, আমাদের সব নামাজ ঠিক থাকলেও ফজরের নামাজের অবস্থা বেহাল দশা। যোহর, আসর, মাগরিব এমনকি এশা নামাজ পড়লেও ফজরে উঠতে বেশ হিমসিম খাই। অনেক চেষ্টা সত্ত্বেও ঘুম ভাঙ্গে না। এটা আমাদের নিত্যদিনের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। অনেকের তো রমাদান ছাড়া ফজরে উঠাই হয় না। কীভাবে এ সমস্যার সমাধান করবেন? আসুন, ফজরে জেগে

Read more

নবীজির সাথে ঈদ

নবীজির সাথে ঈদ

নবীজি (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ঈদের দিন বেশ কিছু কাজ করতেন। এটা তাঁর প্রত্যহিক চর্চা ছিল। হাদীস ও ফিকহের কিতাবাদিতে এগুলো নবীজির সুন্নাহ হিসেবে এসেছে। চলুন, আজ আমরা জেনে নিই ঈদের দিন নবীজি কী কী কাজ করতেন। আমাদের কী করণীয়। ১) তাকবীর দেওয়া ঈদের রাতে তাকবীর দেওয়া মুস্তাহাব। রমযান মাসের সর্বশেষ দিনের সূর্যাস্ত থেকে শুরু

Read more

জুমার দিনে দুআ কবুলের বিশেষ মুহূর্ত

জুমার দিনে দুআ কবুলের বিশেষ মুহূর্ত

জুমার দিনটা একটু বেশিই স্পেশাল। কারণ, এই দিনে এমন একটি সময়ে আছে, যখন জান্নাতের দরজাগুলো খুলে দেয়া হয় এবং দুআ কবুল হয় • সময়টা অনেকটা লাইলাতুল কদরের মতো লুকায়িত। তবে সম্ভাবনা আছে, এটা মাগরীবের আগ মুহূর্ত, যখন আসরের শেষ সময় চলে। • আবার এটাও হতে পারে, জুমার নামাজের ইকামত থেকে নিয়ে মুসল্লিদের মসজিদ থেকে যাওয়ার

Read more